ABO kit | এবো কিট খাওয়ার নিয়ম | ABO kit এর কাজ কি | ABO kit এর দাম কত

আসসালামু আলাইকুম। আমাদের আজকের আর্টিকেল হচ্ছে এবো কিট নিয়ে আপনাদের সাথে সেয়ার করবো Abo kit ট্যাবলেট এর কাজ কি খাওয়ার নিয়ম সহ বিভিন্ন বিষয়ে। আজকের পোস্ট যা যা থাকছে নিচে দেওয়া হলো। নিচের লিখা গুলোতে ক্লিক করে দ্রুত পড়তে পারবেন।
পেইজ সূচিপত্র দ্রুত পড়তে সহায়ক

Abo kit এর কাজ কি

এবো কিট ওষুধটি গর্ভধারণের ৬৩ অর্থাৎ ৯ সপ্তাহের মধ্যে মাসিক নিয়মিতকরণের জন্য ব্যবহার করা হয়। কোন রকম অস্ত্র প্রচার ছাড়াই এই ওষুধের মাধ্যমে মাসিক নিয়মিতকরণ করা যায়। ৬৩ দিনের বেশি গর্ভধারণ হলে এবো কিট ব্যবহার করার নির্দেশনা নেই। যদি কোন কারণে ৯ সপ্তাহের বেশি পার হয়ে যায় তাহলে ডাক্তারে পরামর্শ নিতে হবে।

abo কিট খাওয়ার নিয়ম

abo kit টেবলেট দুই ধাপে খাওয়াতে হয়। প্রথমে  ধাপে মিফেপ্রিস্টোন ২০০মি.গ্রাম অর্থাৎ  বড় যে টেবলেটটি  ডাক্তারের সামনে মুখে খেতে হবে। দ্বিতীয় ধাপে ২৪-৪৮ ঘন্টার মধ্যে মিসােপ্রােস্টল ২০০ মাইক্রো গ্রাম অর্থাৎ ছোট চারটি টেবলেট জিহবা নিচে অন্তত আধা ঘণ্টা রাখতে হবে।কোন রকম থুথু ফেলা যাবে না। আধা ঘণ্টার মধ্যে টেবলেট চারটি শেষ না হলে বাকি অংশ পানি দিয়ে খেয়ে নিতে হবে। চিকিৎসকের পরামর্শ মােতাবেক ঔষধ সেবন করুন।

abo কিট এর দাম কত abo kit Price in Bangladesh

এবো কিটে রয়েছে ১টি মিফেপ্রিস্টোন ২০০ মি.গ্রা. টেবলেট এবং ৪টি মিসােপ্রােস্টল ২০০ মাইক্রো গ্রাম টেবলেট।মোট ৫ টেবলেট কিট টি বর্তমান মূল্য ৩০০ টাকা।

abo কিট টেবলেট উপাদান

এবো কিট ওষুধটিতে ২ধরনের উপাদানে তৈরি করা হয়েছে, প্রথম একটি টেবলেটে রয়েছে মিফেপ্রিস্টোন ২০০ মি.গ্রা. এবং দ্বিতীয় ৪টি টেবলেটে রয়েছে  এর মিসােপ্রােস্টল ২০০ মাইক্রো গ্রাম। ওষুধটি এমএম কিট (abo kit) নামে বাজারজাত করেছে জিসকা ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড।এছাড়া এই ঔষধ বিভিন্ন নামে বাজারজাত করেছে দেশিও আরো অনেক গুলো কোম্পানি। 

ABO কিট টেবলেট এর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া

এই টেবলেট টির বেশি ভাগ ক্ষেত্রে মাসিকে অধিক রক্তক্ষরণ এবং মাসিকে অনিয়ম দেখা যায়। এছাড়াও মাথা ঘোরা, বমি করা, বমি বমি ভাব দেখা যায়। পেটে অধিক পরিমানে মোচড়,শরীর দূর্বলতা। মাসিকের ১৫ দিন আগে পরে অনিয়ম।কারো আগে হয় মাসিক আবার কারো কারো ক্ষেত্রে পিছিয়ে যায়। তবে এসকল উপসর্গ সবার ক্ষেত্রে দেখা যায় না। যদি এসকল উপসর্গ দেখা যায় তাহলে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

মিফেপ্রিস্টোন গ্রহণের ১০ থেকে ১৪ দিন পর ডাক্তার  যেতে হবে। আন্ট্রাসনােগ্রাফী করে দেখতে হবে গর্ভাবস্থার টিস্য রয়ে গিয়েছে কিনা। যদি কোন কারণে গর্ভবতী রয়ে যান তাদের ক্ষেত্রে ভ্রন বিকলাঙ্গ হওয়ার সম্ভবনা থাকে তাই আন্ট্রাসনােগ্রাফী করার অন্তত জরুরি। মাসিক নিয়মিতকরণ সফল না হলে ডাক্তারগন অস্ত্রোপচার এমভিএ করার জন্য পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

abo কিট খাওয়ার কত দিন পর সহবাস করা যায়?

এবো কিট-(abo kit) খাওয়ার পর মাসিক নিয়মিত হলে। সুস্থ হওয়ার ২দিন পর থেকে সহবাস করা যায়। কোন অবস্থাতে ব্লেডিং অবস্থায় সহবাস করা যাবে না।তবে সহবাস করার আগে অবশ্যই একজন অভিজ্ঞতা সম্পূর্ণ ডাক্তারের পরামর্শ নিবেন।

এবো কিট খাওয়ার কত দিন পর মাসিক হয়

Abo kit ২ ধাপে খেতে হয়। এবো কিট খাওয়ার ২৪-৪৮ ঘন্টার মধ্যে মাসিক হয়ে যায়। কোন কারণে মাসিক হতে সময় লাগলে অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নিতে হবে। এই ঔষধ গুলো চিকিৎসক এর পরামর্শ ছাড়া একদমই খাওয়া উচিত নয়।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url